• শনি. এপ্রি ১৭, ২০২১

রাণীশংকৈলের আলু যাচ্ছে বিদেশে

মার্চ ৭, ২০২১

সবুজ ইসলাম, রাণীশংকৈল:
দেশের গন্ডি পেরিয়ে এবার বিদেশের মাটিতে রপ্তানি হচ্ছে রাণীশংকৈলের কৃষকের উৎপাদিত আলু। জানা যায় এক আমদানি- রপ্তানিকারক প্রতিষ্ঠানের মাধ্যামে এ উপজেলার কৃষকের উৎপাদিত বিভিন্ন জাতের ৫০০ টনের অধিক আলু যাচ্ছে মালয়েশিয়া,নেপাল সহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে । ফলে আর্থিকভাবে লাভবান এবং আলু চাষে অধিক আগ্রহ বাড়ছে এই এলাকার আলু চাষিদের মাঝে।
উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর জানায়, চলতি মৌসুমে এ উপজেলায় আলু চাষে লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছিল ৩৮৬০ হেক্টর । কিন্তু অর্জন হয়েছে ৩৯৫০ হেক্টর।চলতি মৌসুমে জেলার রাণীশংকৈলে অনুকূল আবহাওয়া হওয়ায় বাম্পার ফলনের কথা জানিয়েছে কৃষি দপ্তর। এক আমদানি-রপ্তানিকারক প্রতিষ্ঠান এ উপজেলার কৃষকদের কাছ থেকে মাঝারি ধরনের ‘ডায়ামন্ট, গ্রানোলা,এসটোরিক’ জাতের আলু ১০ টাকা কেজি দরে কিনে বিদেশে রপ্তানি করছে। এর ফলে আর্থিকভাবে লাভবান হচ্ছেন চাষিরা।
উপজেলার ধর্মগড় এলাকার এক আলু চাষী ১ একর জমিতে উন্নত জাতের আলু চাষ করে বলেন, কৃষি অফিসের যথার্থ পরামর্শে ভালো ফলন পেয়েছি এর ফলে আর্থিকভাবে ভালোই লাভবান হয়েছি ।
আরেক আলু চাষি বলেন,আমি ২ একর এর উপরে আলু লাগিয়েছি । কৃষি অফিসের পরামর্শে উন্নত জাতের আলু চাষ করে ভালো ফলন পেয়েছি। আবহাওয়া ভালো থাকায় ভালো ফলনও হয়েছে। এবার বাজারে আলুর আমদানি বেশি থাকায় দাম একটু কম পাওয়া গেছে। তবে অর্ধেক জমিতে থাকা আলু এক প্রতিষ্ঠানের( আমদানি-রপ্তানিকারক) এক লোক এসে ১০ টাকা কেজি দরে ক্রয় করেছে। আর বলছে বিদেশে পাঠানো হবে।এর ফলে একটু লাভের মুখ দেখব বলে আশা করছি।
উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ সঞ্জয় দেবনাথ বলেন,যেকোন ফসলে কৃষকদের পরামর্শ ও প্রযুক্তি প্রদান করে সহযোগিতা করা হচ্ছে। কৃষকরা যেন সবসময় সব ফসলে ভালো ফলাফল পায় সেদিকে নজর রাখা হচ্ছে । এবার এ এলাকার আলু চাষিদের আলু বিদেশে রপÍানির ফলে কৃষকরা আর্থিক ভাবে লাভবান হচ্ছেন। আগামীতে ফুলকপি, মুলা,টমেটোসহ আরো কৃষি পণ্য বিদেশে রপ্তানি হবে বলে আশা করছি।