• বুধ. অক্টো ২৮, ২০২০

সম্পকের্র টানাপড়েন আর নয়!

সেপ্টে ১৬, ২০২০

অনেকেই মনে করেন, মনের মানুষের সঙ্গে মাঝে মধ্যে সম্পকের্র অবনতি হলেও আসলে তা ভালোবাসার সম্পর্ক আরো গাঢ় করে তোলে। কিন্তু এর মাত্রা কতখানি হবে? প্রিয় মানুষের সঙ্গে মান অভিমান ঝগড়াÑ মানবীয় সম্পকের্র এ খেলা চলে আসছে আদিকাল থেকে। এ খেলায় হার কিংবা জিত বলে কথা নেই। মনে রাখবেন, এতে শুধু দুটি মানুষের দূরত্বই বাড়ে। অনেকেই মনে করেন, মনের মানুষের সঙ্গে মাঝে মধ্যে সম্পকের্র অবনতি হলেও আসলে তা ভালোবাসার সম্পর্ক আরো গাঢ় করে তোলে। কিন্তু এর মাত্রা কতখানি হবে? সম্পকের্র মূলমন্ত্র সততা আর বিশ্বাস। নিজেদের মধ্যে এমন একটা পরিবেশ গড়ে তুলতে হবে, যেখানে কোনো সংশয় বা আতঙ্ক ছাড়াই পরস্পর ভাববিনিময় করতে পারবে। কোনো কারণে মতের অমিল হতেই পারে, তবে তাকে প্রলম্বিত করা চলবে না। সম্পকের্র মধ্যে খুব বেশি যুক্তি-তর্ক না দেখানোই ভালো। সেই সঙ্গে ক্ষমা চাওয়ার কিংবা ক্ষমা করার মনোভাবও থাকতে হবে। যে কোনো সমস্যা সমাধানে এর চেয়ে বড় কোনো হাতিয়ার খুঁজে পাওয়া ভার। যে বিষয়টি নিয়ে ঝগড়ার সূত্রপাত, তা ভালোভাবে ব্যাখ্যা করতে হবে। রাগের মাত্রা সীমা ছাড়িয়ে গেলে নিজেকে সংযত করার চেষ্টাও থাকা চাই। সম্পকের্র চাকা সচল রাখতে কিছু ছাড় দিতেই হবে। সবকিছু সামলে সামনের দিকে এগিয়ে যাওয়াই বুদ্ধিমানের কাজ। সমস্যা যা-ই হোক না কেন, তাকে বড় করে দেখার চেষ্টা না করা ভালো। নইলে ভুগতে হবে। সমাধানের উপায় খুঁজতে হবে। কথায় আছে না, যত মুশকিল, তত আসান। খুব বেশি রাগ হলেও অনেকক্ষণ চুপচাপ বসে থাকা যাবে না। এতে হিতে বিপরীত হতে পারে। নিজের এ ধরনের আচরণে ঘটে যেতে পারে কোনো অনাকাক্সিক্ষত ঘটনা। আর নিজের কোনো ধারণা থেকে কাউকে বিচার করার চর্চা থেকেও বেরিয়ে আসতে হবে। মনে কোনো প্রশ্ন থাকলে লুকিয়ে না রেখে শেয়ার করুন। উত্তর পেয়ে যাবেন।