• মঙ্গল. অক্টো ২০, ২০২০

কুড়িগ্রামে যুবলীগ নেতা হত্যাচেষ্টা মামলার আসামীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি

সেপ্টে ১৩, ২০২০

স্টাফ রিপোর্টার :
কুড়িগ্রামের রাজিবপুর উপজেলার চর বেষ্টিত কোদালকাটি ইউনিয়নে একের পর এক সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় এলাকা জুড়ে আতংক সৃষ্টি হয়েছে। সন্ত্রাসী শাহিন ও শাহাদত বাহিনীর হাতে ইউনিয়ন চেয়ারম্যান হুমায়ুন কবির ছক্কুর উপর সন্ত্রাসী হামলার ঘটনার পর ৩১ আগস্ট ইউনিয়ন যুবলীগ নেতা হাসানুর রহমানের উপর হত্যাচেষ্টা চালায় এই সন্ত্রাসী বাহিনী। গুরুতর আহত হাসানুর রহমানকে ঢাকায় উন্নত চিকিৎসার পর বাড়িতে আনা হলে আবার অসুস্থ হয়ে পরলে তাকে কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতারে ভর্তি করা হয়েছে। তার অবস্থা আশংকাজনক। মাদক, ইয়াবা ও সাধারণ মানুষকে আটকিয়ে মুক্তিপণ আদায় করা এ বাহিনীর বিরুদ্ধে মাদকসহ রয়েছে ৪/৫টি সন্ত্রাসী হামলার মামলা। প্রতিবাদ করলেই তাদের উপউর নেমে আসে অত্যাচারের খড়গ। ব্রহ্মপূত্র নদ বেষ্ঠিত এই দ্বীপচরটিতে জামায়াত ও বিএনপি সমর্থিত লোকজনের ইন্ধনে সরকারদলীয় নেতাকর্মীর উপর একের পর এক সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটলেও অদৃশ্য কারণে পার পেয়ে যাচ্ছে তারা।
এ ঘটনায় রোববার সকালে কুড়িগ্রাম প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন ও মানববন্ধন করে কোদালকাটি ইউনিয়ন এলাকাবাসী। এসময় লিখিত বক্তব্য পাঠ করে শোনান কোদালকাটি ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি সোহেল সরকার। এসময় তার সাথে ছিলেন হাসানুর রহমানের বাবা জহুরুদ্দি, চাচা জামাল উদ্দিন, ইউপি মেম্বার ইব্রাহিম খলিলসহ এলাকার প্রায় অর্ধশতাধিক লোকজন।
মানববন্ধন ও সংবাদ সম্মেলনে শাহিন ও শাহাদত বাহিনীর লোকজনকে গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানানো হয়।