• রবি. অক্টো ২৫, ২০২০

যেসব খাবারে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যায়

সেপ্টে ১২, ২০২০

করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়তে হলে ইমিউনিটি বা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানোর বিকল্প নেই। সেজন্য সেই শুরু থেকে এখন অব্দি আমরা শুধু রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানোর উপায় সম্পর্কেই আলোচনা করছি বা জানার চেষ্টা করছি। কিন্তু এই জানা ও মানার প্রচেষ্টা ব্যর্থ হবে যদি আমরা মনের অজান্তেই এমন খাবার খাই যা আমাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমিয়ে দেবে। জেনে নিন কোন খাবারগুলো আমাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমিয়ে দেয়।
টেস্টিং সল্ট
ফাস্ট ফুড
বর্তমান যুগে খুব কম মানুষই আছে যারা ফাস্ট ফুড খান না। কিন্তু এই ফাস্ট ফুড যে আমাদের জন্য হুমকিস্বরূপ সেটা কি একবার ও ভেবে দেখেছি আমরা? ফাস্ট ফুডে প্রচুর পরিমাণে চিনি ও লবণ থাকে এবং খুব কম আঁশ থাকে। ফলে এই খাবারগুলোতে প্রচুর পরিমাণে ক্যালোরি থাকে, যা আমাদেরকে মুটিয়ে যাওয়ার দিকে ঠেলে দেয়। আমরা জানি ওবেসিটি বা স্থুলতা হলো অনেক রোগের প্রধান কারণ। সুতরাং ফাস্ট ফুড খাওয়ার ফলে আপনি যত বেশি মুটিয়ে যাবেন তত বেশি রোগ হওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যাবে। গবেষণায় দেখা গেছে, নিয়মিত ফাস্ট ফুড খাওয়ার ফলে দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতার জন্য যে প্রতিবর্ত প্রক্রিয়া সেটির ধরন পাল্টে যায় এবং রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যায়।
টেস্টিং সল্ট বা মনোসোডিয়াম গ্লুটামেট (এমএসজি) সমৃদ্ধ খাবার
বর্তমান তৈরিকৃত (রেডি টু ইট) ও প্রক্রিয়াজাত খাবারের প্রতি মানুষের আগ্রহ বেড়েছে বহুগুণ। প্রায় প্রত্যেক পরিবারেই কোনও না কোন ধরনের রেডি টু ইট খাবার খাওয়া হচ্ছে নিয়মিতই। এই প্রক্রিয়াজাত খাবারগুলোতে হরহামেশাই ব্যবহৃত হচ্ছে টেস্টিং সল্ট। গবেষণায় দেখা গেছে, টেস্টিং সল্ট থাইমাস ও স্পিøন এর ক্রিয়াকলাপ কমিয়ে দেয় ফলে টি-সেল ও বি-সেল এর উৎপাদন কমে যায়। এতে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাও কমে যায়। এ ছাড়া এই টেস্টিং সল্ট ইন্টারলিউকিন এর উৎপাদন ও কমিয়ে দেয় এবং রোগাক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা বাড়িয়ে দেয়।
ক্যাফেইনক্যাফেইন
আমরা প্রায় প্রতিদিনই চা অথবা কফি খাই এবং এটাও সবাই জানি যে এগুলোতে ক্যাফেইন পাওয়া যায়। গবেষণায় দেখা গেছে অতিরিক্তি ক্যাফেইন পান করলে দেহে টি-সেল ও ইন্টারলিউকিন এর উৎপাদন কমে যায়। অর্থাৎ রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যায়।
অ্যালকোহলজাতীয় পানীয়
অ্যালকোহল সমৃদ্ধ পানীয় পানে ম্যাক্রোফেজ, ইমিউনোগ্লোবিউলিন ও সাইটোকাইন এর কার্যক্ষমতা কমে যায়। এই উপাদানই দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। কিন্তু যখন এগুলোর কার্যক্ষমতা কমে যাবে তখন খুব সহজেই দেহ ভাইরাস বা ব্যাকটেরিয়াজনিত রোগে আক্রান্ত হবে।
চিনি সমৃদ্ধ খাবার
আমাদের প্রতিদিনকার খাদ্য তালিকায় থাকা বেশিরভাগ খাবারই চিনি সমৃদ্ধ। চিনি হচ্ছে ব্যাকটেরিয়া বা ভাইরাসের জন্য সবচেয়ে উপাদেয় খাদ্য। তাই আমরা যত বেশি চিনি সমৃদ্ধ খাবার খাব ততবেশি ক্ষতিকর ভাইরাস, ব্যাকটেরিয়া আমাদের দেহে জন্ম নেবে। এবং আমাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমিয়ে দেবে।
লেখক: শিক্ষার্থী, ফলিত পুষ্টি ও খাদ্য বিভাগ ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়