• বুধ. অক্টো ২৮, ২০২০

ইউএনও ওয়াহিদার হাত-পা এখনো অবশ: চিকিৎসক

সেপ্টে ১২, ২০২০

গত ২ সেপ্টেম্বর মধ্য রাতে ঘোড়াঘাটে সরকারি বাসায় দুর্বৃত্তদের হামলার শিকার হন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ওয়াহিদা খানম ও তার বাবা। এরপর তাকে ও তার বাবাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে তার বাবা চিকিৎসাধীন আছেন। তবে ইউএনওর অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে ঢাকায় আনা হয়।

৩ সেপ্টেম্বর দুপুরে রংপুর ক্যান্টনমেন্ট থেকে এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে ওয়াহিদা খানমকে ঢাকায় আনা হয়। ঢাকার ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরোসাইন্স হাসপাতালে ভর্তি করা হয় ওয়াহিদাকে। ওইদিনই রাত ৯টার দিকে তার অস্ত্রোপচার হয়। অস্ত্রোপচার শেষে চিকিৎসক বলেন, অস্ত্রোপচার সফল হয়েছে। তাকে আইসিইউতে অবজারভেশনে রাখা হয়েছে। ৪ সেপ্টেম্বর সকালে ওয়াহিদা খানমের জ্ঞান ফেরে।

শনিবার (১২ সেপ্টেম্বর) ইউএনওর চিকিৎসায় গঠিত মেডিকেল বোর্ডের প্রধান ডা. মোহাম্মদ জাহেদ হোসেন জানান, ওয়াহিদা খানমের হাত-পা এখনো অবশ আছে। তাই আরো কিছু দিন হাসপাতালে রাখতে হতে পারে।

আজ বেলা সোয়া ১১টার দিকে ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্স হাসপাতাল থেকে নিয়মিত ব্রিফিংয়ে তিনি এ কথা বলেন।

ডা. মোহাম্মদ জাহেদ হোসেন বলেন, ‘এখনো দিনে ৩ থেকে ৪ বার তাকে ফিজিওথেরাপি দেয়া হচ্ছে। তিনি এখন অনেক ভালো আছেন। হাতে পায়ে উন্নতি হওয়াটা বাকি আছে। এটা ছাড়া তেমন জটিলতা নেই। ওয়াহিদা খানম মোটামুটি শঙ্কামুক্ত।’