• মঙ্গল. জুলা ৫, ২০২২

ভুল এসএমএস বিভ্রান্ত কোভিট-১৯ টিকার ২য় ডোজ গ্রহীতারা

আগ ১৫, ২০২১

স্টাফ রিপোর্টার:
কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরী উপজেলায় মাত্র ৫মিনিটের ব্যবধানে ফোনে ২টি ক্ষুদে বার্তা দিয়েছে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স। এই বার্তায় বিভ্রান্তিতে পড়েছেন কোভিট-১৯ টিকার ২য় ডোজ গ্রহীতাগণ।
জানাযায়, গত ১৪ জুলাই নাগেশ^রী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কোভিট-১৯টিকার ১ম ডোজ গ্রহণ করেন ১১৪ জন। এরমধ্যে পুরুষ-৬৮ জন এবং মহিলা-৪৬ জন। প্রথম ডোজ টিকা গ্রহণের একমাস পরে ১৪ আগস্ট তাদের টিকা দ্বিতীয় ডোজ গ্রহনের তারিখ পড়ে। কিন্তু শুক্রবার ১৩আগষ্টের মধ্যে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে তাদেরকে এসএমএস-র মাধ্যমে বিষয়টি নিশ্চিত করার কথা থাকলেও ওই দিন কোন টিকা ভোগিদের এসএমএম আসেনি। এসএমএস না পাওয়া অনেকেই কেন্দ্রে যাননি। ফলে ১৪আগষ্ট ২য় ডোজ নেয়া হয়নি অনেকের। কিন্ত হঠাৎ করেই সন্ধ্যা ৭টার দিকে পর-পর ২টি ক্ষুদে বার্তা কারো কারো ফোনে আসে। একটিতে ওই দিনেই তাদের ২য় ডোজ নিতে বলা হয়। আবার অন্যটিতে জানানো হয় আপনার ২য় ডোজ গ্রহন সম্পন্ন হয়েছে। মাত্র ৫ মিনিটের ব্যবধানে এ দুটি মেসেজ পেয়ে বিভ্রান্তিতে পড়েছেন টিকার প্রথম ডোজ গ্রহীতারা। কোভিট-১৯ ভ্যাক্সিনের ২য় ডোজ গ্রহনের আগেই যদি তা সম্পন্ন হয় তাহলে সেটি কাকে দেয়া হল এই প্রশ্ন অনেকের মধ্যে।
উপজেলার বামনডাঙ্গা ইউনিয়নের সেন পাড়া গ্রামের বাসিন্দা শ্রাবনী দে বলেন, কোভিট-১৯এর ভ্যাক্সিন নিতে যাওয়া ব্যাক্তিরা তাদের ফোনে মেসেজ দেখাতে না পারলে টিকা কেন্দ্রে ব্যাপক হয়রানি হতে হয়। তাই গত ১৪ আগস্ট তার কোভিট-১৯ভ্যাক্সিনের ২য় ডোজ গ্রহনের কথা থাকলেও মেসেজ না পাওয়ায় যেতে পারিনি। অথচ সে মেসেজ এসেছে শনিবার সন্ধ্যা ৭ টা ২৫ মিনিটে। আরো অবাক করার বিষয় তার ঠিক ৫ মিনিট পরে ৭ টা ৩০ মিনিটে মেসেজ আসে আমার ২য় ডোজ গ্রহন সম্পন্ন হয়েছে। আমি তো ২য় ডোজ গ্রহণ করলাম না। তারপরেও ২য় ডোজ সম্পন্ন ম্যাসেজ আসল। এই ম্যাসেজ বিড়ম্বনায় আমার ২য় ডোজ নেয়াই হল না অথচ তার আগেই নাকি তা সম্পন্ন হয়েছে। এটি কিভাবে সম্ভব?
কচাকাটা থানার বাসিন্দা শিক্ষক ও গণমাধ্যমকর্মী আব্দুল কুদ্দুস চঞ্চল বলেন,১৪আগষ্ট সন্ধ্যা ৭টা ২৭মিনিট ম্যাসেজ আসল ২য় ডোজ গ্রহণের এর কিছুক্ষণ পরেই ৭টা ৩২মিনিটে আরেকটি ম্যাসেজ আসল আমার ২য় ডোজ সম্পন্ন হয়েছে। কিভাবে এটি সম্ভব হলো বুঝতে পারছি না? এখন প্রশ্ন হলো আমার ২য় ডোজ টিকা কাকে দেয়া হলো?
নেওয়াশী ইউনিয়নের জয়মঙ্গল গ্রামের এগার মাথার বাসিন্দা জাহাঙ্গীর আলম বলেন,ম্যাসেজ ঝামেলায় পড়ে কোভিট-১৯ভ্যাক্সিনের ২য় ডোজ নেয়া হয়নি। এমন দশা অনেকেরই হয়েছে।
উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ডা: ফয়সাল হোসেন বলেন,কারিগরি ত্রুটির জন্য এমনটি হয়েছে। এজন্য আমরা আন্তরিকভাবে দু:খ প্রকাশ করছি। যারা এমন ম্যাসেজ পেয়েছেন তারা যোগাযোগ করলে ২য় ডোজের টিকা প্রদান করা হবে।