• অক্টোবর ২, ২০২২ ৯:১০ পূর্বাহ্ণ

ফুলবাড়ীতে সেই গাছ ফেরত দিলেন চেয়ারম্যান

সেপ্টে ১৪, ২০২২

ফুলবাড়ী প্রতিনিধি:
বিক্রিত সেই গাছ ফেরত দিলেন নাওডাঙ্গা ইউপি চেয়ারম্যান মো. হাছেন আলী। কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলার নাওডাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদ চত্বরে অবস্থিত দু”টি সরকারি গাছ গত রোববার দরপত্র ছাড়া বিক্রি করেন ওই ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান। তাজা (লম্বু) গাছ দু”টি বিক্রি করায় ব্যাপক সমালোচনার ঝড় উঠে ওই এলাকায়। এ নিয়ে ১৩ সেপ্টম্বর সকালের কাগজ, সমকাল সহ আরো অনেক পত্রিকায় খবর প্রকাশ হয়। বিষয়টি প্রশাসনের নজরে আসলে মঙ্গলবার রাতে তরিঘরি করে ছ,মিল চত্বরে রাখা ১২টি গুল (খন্ড) ইউনিয়ন পরিষদের গোডাউন সংলগ্ন মাঠে আবার নিয়ে জড়ো করেন তারা।
জানা গেছে ওই ইউনিয়ন পরিষদের অবস্থিত গোডাউনের পাশে দুটি লম্বু গাছ রোপন করা হয় কয়েক বছর আগে। গাছ দুটি লম্বা হয়েছে ২৫/৩০ফিট। নাওডাঙ্গা পরিষদ চত্বরে গাছ দু”টি মাঠের সৌন্দর্য ছিল । এর মধ্যে ওয়াস ব্লক নির্মাণের অজুহাতে স্থানীয় কাঠ ব্যবসায়ী ছায়েদ আলীর কাছে ওই গাছ বিক্রি করেন তিনি। ছায়েদ আলীর লোকজন গাছ কেটে বালারহাট বাজারের তোফাজ্জল আলীর ছ,মীলে ৫ফিট করে ১২টি গুল (খন্ড) নিয়ে যান।
এ বিষয়ে কাঠ ব্যবসায়ী ছায়েদ আলী জানান, গাছ দু”টির ১২টি খন্ড(গুল) চেয়ারম্যানের নিদের্শে চকিদারের মাধ্যমে ফেরত দেয়া হয়েছে।
নাওডাঙ্গা ইউপি চেয়ারম্যান মো. হাছেন আলী জানান, পরিষদ চত্বরে ওয়াস ব্লক নির্মাণে হবে। সেকারনে গাছ দু”টি কাটা হয়েছে। পরে প্রশাসনের নির্দেশে ফেরত নিয়ে আসা হয়েছে। কাগজপত্র ঠিক করে প্রকাশ্যে নিলাম দেয়া হবে। নিলামের বিষয়টি সাংবাদিকদের অবগত করা হবে।
ফুলবাড়ী উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুমন দাস জানান, গাছ কাটার বিষয়টি প্রসেস চলছে। পরবর্তীতে কি ব্যবস্থা নেয়া হবে , আপনারা তা জানতে পারবেন।