• জানুয়ারি ৩০, ২০২৩ ৭:০১ পূর্বাহ্ণ

ফুলবাড়ী সীমান্তে বিএসএফের মারপিটে
বাংলাদেশী এক যুবক আহত

জানু ১৮, ২০২৩

ফুলবাড়ী প্রতিনিধি:
কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলার সদর ইউনিয়নের নাখারজান সীমান্ত দিয়ে ভারত থেকে মাদক নিয়ে আাসার সময় বাংলাদেশী এক চোরাকারবারীকে আটক করে বেধরক মারপিট করেছে ভারতীয় সীমান্ত রক্ষী বাহিনী (বিএসএফ)। গুরুত্বর আহত ওই যুবককে নোম্যান্স ল্যান্ড থেকে উদ্ধার করে বাংলাদেশের অভ্যন্তরে গোপনে চিকিৎসার ব্যবস্থা করেছে তার পরিবার। এ ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার সকাল ৭টার দিকে।
জানা গেছে , বুধবার উপজেলার নাখারজান সীমান্তের আর্ন্তজাতিক ৯৪০ নং মেইন পিলারের ৫ নং সাব পিলার এলাকার দিয়ে সকাল বেলা দু’দেশের কয়েকজন চোরাকারবারী মাদক পার করার সময় ভারতীয় কুচবিহার জেলার অধীনে ১৩৮ বিএসএফ ব্যাটালিয়নের (ছাপরি) ক্যাম্পের টহলরত বিএসএফের সদস্যরা তাদেরকে দেখে ধাওয়া করে। এ সময় প্রচন্ড কুয়াশা শীতের কারনে চোরাকারবারী জীবন বাঁচার জন্য বিভিন্ন স্থানে গিয়ে আত্নগোাপন করে। বিপাকে পড়েন ওই এলাকার মৃত আজিমুদ্দিনের ছেলে আমজাদ আলী (৫০)। তিনি ওই সীমান্তের ঠাকুরের কুড়ানদী পার হওয়ার সময় আটক হন বিএসএফের হাতে। আটক যুবককে নোম্যান্স ল্যান্ড মাটিতে ফেলে এলোপাতাড়ী মারপিট করা হয়। এ সময় অচেতন হয়ে পড়েন তিনি। বিএসএফের সদস্যরা তাকে মৃত মনে করে সীমান্ত ঘেঁষা আলু ক্ষেতে ফেলে রেখে কাটাতাঁরের ভিতরে চলে যায়। এ সময় রাবার বুলেটের বিস্ফোরণ করে আর্তক্সক ছড়িয়ে দেন ওই সীমান্তে।
এদিকে কিছুক্ষন পর তার জ্ঞান ফিরে আসলে মাটিতে হামাগুড়ি দিয়ে কৌশলে বাংলাদেশের অভ্যন্তরে ঢুকেন তিনি। রাবার বুলেটের বিস্ফোরণের শব্দ শুনে তাকে খোঁজার জন্য তার পরিবারের লোকজন ছুটে যান ঘটনাস্থলে। পরে তাকে আহত অবস্থায় আলু ক্ষেত থেকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য গোপনে রাখা হয়।
ওই এলাকার আজকারুল ইসলাম ,ও হয়রত আলী জানান সকালে বেলা শুনেছি বিএসএফের মারপিটে আমজাদ আলী আহত হয়েছেন । পরে তাকে কোথায় নিয়ে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে ,তা আমার জানা নেই।
লালমনিরহাট ১৫ বিজিবির অধীনে গংগারহাট বিজিবি ক্যাম্পের নায়েক সুবেদার নুরুল ইসলাম জানান, বাংলাদেশী এক যুবক আলুর ক্ষেত দেখার জন্য সীমান্তে গিয়েছিল। প্রচন্ড শীতের কারনে এ সময় ওই যুবককে আটক করে মারপিট করেছে বিএসএফ। খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে বিজিবি পাঠানো হয়েছে। এ বিষয় উদ্ধর্তন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে।