• রবি. জুন ২৬, ২০২২

ঠাকুরগাঁওয়ে বিপুল পরিমাণ আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার

মে ১৭, ২০২২

ঠাকুরগাঁও জেলা প্রতিনিধি :
 ঠাকুরগাঁও পৌর শহরের আশ্রমপাড়ায় ভবন নির্মাণের জন্য মাটি খুঁড়তে গিয়ে ২৪টি থ্রি-নট-থ্রি রাইফেল ও ৩টি এসএলআর উদ্ধার করা হয়েছে। এসময় বিপুল পরিমাণ গুলিও উদ্ধার করা হয়। পুলিশের ধারণা মুক্তিযুদ্ধের সময় এসব আগ্নেয়াস্ত্র ব্যবহৃত হয়েছিল। 
গতকাল মঙ্গলবার শহরের আশ্রমপাড়া এলাকার বাসিন্দা আবু হানিফের একটি নতুন পাকা ভবনের নির্মাণ কাজ করার সময় মাটি খুঁড়তে গিয়ে একটি বাক্সের ভেতর থেকে আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার করা হয় বলে জানান ঠাকুরগাঁও পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর হোসেন। 
পুলিশ জানায়,  মঙ্গলবার দুপুরের দিকে শহরের আশ্রমপাড়া এলাকার বাসিন্দা আবু হানিফের ভবন নির্মাণের কাজ করছিল শ্রমিকরা। এসময় সেখানে শ্রমিকরা মাটি খুঁড়তে গিয়ে একটি স্টিলের ট্রাঙ্ক দেখতে পায়। পরে ট্রাঙ্কের ভিতর অস্ত্র দেখতে পুলিশকে খবর দেয়া হয়। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ট্রাঙ্ক থেকে ২৪টি থ্রি-নট-থ্রি রাইফেল ও ৩টি এসএলআর উদ্ধার করে। 
এদিকে ঘটনাস্থল পরির্দশন করেছেন ঠাকুরগাঁওয়ের জেলা প্রশাসক মো. মাহবুবুর রহমান, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর হোসেনসহ বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার লোকজন। পরে একজন নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেটের নেতৃত্বে ঐ ট্রাংকটি আগ্নেয়াস্ত্র ও গুলিগুলোর তালিকা প্রনয়ন করা হয়। 
এদিকে ঘটনাটি জানাজানি হলে মুহুর্তের মধ্যে ঘটনাস্থলে উৎসুক জনতা এসে ভীড় জমায়। 
নির্মাণাধীন বাড়ির মালিক আবু হানিফ বলেন, এই জমিটি মোস্তাফিজুর রহমান বাপ্পী নামে এক লোকের কাছে কিনেছিলাম। এরপর এই জমিতে পাকা বাড়ির কাজ শুরু করি। মাটি খোঁড়ার সময়ে শ্রমিকরা মাটির নিচে একটি স্টিলের বাক্স দেখতে পায় এবং ঐ বাক্সে আগ্নেয়াস্ত্র ছিল। তাৎক্ষনিক বিষয়টি আমাকে জানালে আমি পুলিশে খবর দেই। 
ঠাকুরগাঁওয়ের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ  জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, আমরা ধারণা করছি এই আগ্নেয়াস্ত্রগুলো মুক্তিযুদ্ধের সময় ব্যবহার করা হয়েছিল। তারপরও বিষয়টি আরও সুনির্দিষ্ট ভাবে নিশ্চিত হওয়ার জন্য আমরা তদন্ত করছি।