• ডিসেম্বর ১, ২০২২ ১০:৩৯ পূর্বাহ্ণ

চরাঞ্চলকে আলোকিত করতে চিলমারীতে শিক্ষাতরীর যাত্রা

অক্টো ১৬, ২০২২ ,

সাওরাত হোসেন সোহেল, চিলমারী:
দীর্ঘদিন থেকে অবহেলিত চরাঞ্চলের শিক্ষা ব্যবস্থাকে আলোকিত করতে যাত্রা শুরু হলো শিক্ষাতরীর। ভাসলো শিক্ষাতরী আশা জাগলো চরাঞ্চল মানুষের। শিক্ষকদের মাঝেও ফিরেছে স্বস্তি। উপজেলা প্রশাসনের এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে ধন্যবাদ জানান সচেতন মহল। আনন্দ বইছে শিক্ষার্থীদের মাঝে। অভিভাবকদের মুখে ফুটে উঠলো হাসির ঝিলিক।
জানা গেছে, কুড়িগ্রামের চিলমারী উপজেলার তিনটি ইউনিয়ন ব্রহ্মপুত্রের বুকে অবস্থিত। খন্ড খন্ড চরে ভেসে উঠা বেশ কিছু গ্রাম বিদ্যালয় থেকে বিছিন্ন। বিদ্যালয় থাকলেও শিক্ষার মান পায়নি বৃদ্ধি ফলে ঝড়ের পড়ার সংখ্যার তালিকা বেড়েই চলছিল। শিক্ষকদের পাড়াপাড় ছিল ভরসা একমাত্র নৌকা, সেটিও থাকতে হতো অন্যের ভরসায়। বিদ্যালয় পৌঁছাতে পৌঁছাতে বেলা ১১ টা কখনো আরো সময় বেশি লাগতো, এবং রওনা দেয়া লাগতো স্কুল ছুটির সময়ের আগেই। ফলে দিনের পর দিন চরাঞ্চলের শিক্ষা ব্যবস্থা ভেঙ্গে পড়ছিল। বিষয়টি নজরে আসলে আমলে নেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মাহবুবুর রহমান। বিষয়টি নিয়ে স্থানীয় সংসদ সদস্য প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মোঃ জাকির হোসেন (এমপি) এঁর সহযোগীতায় শিক্ষার মানোন্নয়নের জন্য হাতে নেয়া হয় শিক্ষাতরী প্রকল্প। উক্ত প্রকল্পের অধিনে রবিবার সকালে অষ্টমীরচর ইউনিয়নের ৬টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের নিয়ে যাত্রা শুরু করলো শিক্ষাতরী। চরাঞ্চলের শিক্ষাকে আলোকিত ও মানোউন্নয়ন করতে পরীক্ষা মুলক এবং সর্বপ্রথম উপজেলা অষ্টমীরচর ইউনিয়নের উদ্দেশে যাত্রা শুরু করলো ১ম শিক্ষাতরী। শিক্ষাতরীটি রমনাঘাট থেকে শিক্ষকদের নিয়ে নিয়মিত সকাল ৮টায় রওনা দিবে গন্তব্যের উদ্দেশে।
প্রশাসনের এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে সচেতন মহল বলেন, এটি একটি মহৎ কাজ আর সময় মতো শিক্ষকরা স্কুলে পৌঁছাতে পারবে এবং চরাঞ্চলের শিক্ষার্থীরা সঠিক শিক্ষার আলো দেখতে পারবে।
ডাটিয়ারচর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মিজানুর রহমান বলেন, এই শিক্ষাতরী নৌকাটা আমাদের বড় প্রয়োজন ছিল, যেটি ইউএনও স্যার ব্যবস্থা করে দিয়েছেন। তিনি আরো জানান, এখন আর সময় মতো স্কুলে পৌঁছাতে সমস্যা হবে না।
কথা হলে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মাহবুবুর রহমান বলেন, চরাঞ্চলের শিক্ষা মানোউন্নয়ন করতে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মোঃ জাকির হোসেন স্যারের সহযোগীতায় কুড়িগ্রাম জেলা প্রশাসক স্যারের নির্দেশনায় শিক্ষাতরী প্রকল্পের অধিনে অষ্টমীরচর ইউনিয়নের শিক্ষকদের জন্য একটি নৌকার ব্যবস্থা করা হয়েছে এবং ধারাবাহিক ভাবে বাকি ইউনিয়নের জন্য শিক্ষাতরীর ব্যবস্থা করা হবে।
রবিবার শিক্ষাতরী যাত্রা শুরুর সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা শিক্ষা অফিসার মোঃ শহীদুল ইসলাম, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান (ভারঃ) মোছাঃ আছমা বেগম, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মাহবুবুর রহমান, উপজেলা শিক্ষা অফিসার আবু সালেহ্ সরকার, উপজেলা সহকারী শিক্ষা অফিসার মোঃ জাহেদুল ইসলাম, একেএম জাকির হোসেন, শিক্ষাকবৃন্দ।