• ডিসেম্বর ৪, ২০২২ ৯:০৪ পূর্বাহ্ণ

কুড়িগ্রামে স্বামী-স্ত্রীর বিষপান: প্রাণ গেল স্ত্রীর

মার্চ ২৪, ২০২২

স্টাফ রিপোর্টার:
কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারীতে পারিবারিক কলহের জেরে রহিমা খাতুন (৪২) নামে এক গৃহবধূ বিষপানে আত্মহত্যা করেছে। এ ঘটনার পর স্বামী আব্দুল আলিম (৫০) সবার অজান্তে বিষপান করলে তাকে মুমুর্ষ অবস্থায় প্রথমে ভূরুঙ্গামারী ও পরে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তার অবস্থায়ও আশংকাজনক। ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার (২৩মার্চ) সকালে উপজেলার শিলখুড়ি ইউনিয়নের কাজিয়ারচর গ্রামে।
ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে শিলখুড়ি ইউনিয়নেরচেয়ারম্যান মো. আসাদুজ্জামান জানান, সকালে স্বামী স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া বাঁধে। এক পর্যায়ে স্ত্রী রহিমা খাতুন ঘরের দরজা বন্ধ করে ঘরে রক্ষিত কীটনাশক পান করে। পরে দরজা ভেঙ্গে তাকে উদ্ধার করা হলেও হাসপাতালে নেয়ার আগেই তার মুত্যু হয়। এ ঘটনায় অভিমানে স্বামী আব্দুল আলিম সবার অজান্তে কীটনাশক পান করেন। জানাজানি হওয়ার পর স্থানীয়রা তাকে মুমুর্ষ অবস্থায় প্রথমে ভূরুঙ্গামারী হাসপাতালে ভর্তি করে। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। তার অবস্থাও আশংকাজনক। তাদের সংসারে দুটি সন্তান রয়েছে।
এ বিষয়ে ভুরুঙ্গামারী হাসপাতালের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আবু সাজ্জাদ মোহাম্মদ সায়েম জানান, মুমুর্ষ অবস্থায় বিষ পান করা একজনকে হাসপাতালে নেয়া হয়। অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়।
ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ভূরুঙ্গামারী থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আলমগীর হোসেন জানান, বিষপানে মৃত: রহিমা বেগমের মরদেহ উদ্ধার করে থানায় আনা হয়েছে। এ ব্যাপারে একটি ইউডি মামলা করা হয়েছে।